সোমবার, ০১ মার্চ ২০২১, ০৭:৫৫ অপরাহ্ন

আখাউড়ায় হিন্দু পরিবারের জায়গা উদ্ধারের দাবীতে সংবাদ সম্মেলন 

প্রতিবেদকের নাম :
  • আপডেটের সময় : বৃহস্পতিবার, ১৯ নভেম্বর, ২০২০
  • ১১৬ সময় দর্শন
ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রতিনিধি:
ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়ায় বেদখল হয়ে যাওয়া ভূমি উদ্ধারের দাবীতে সংবাদ সম্মেলন করেছে দুটি হিন্দু পরিবার। আজ বৃহস্পতিবার দুপুরে পৌরশহরের রাধানগর নিজ বাড়িতে এ সংবাদ সম্মেলন করেন টিটন বনিক ও লিটন বনিক পরিবার।
সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন টিটন বনিকের ছোট ভাই শিপন বনিক। লিখিত বক্তব্যে তিনি বলেন, রাধানগর মৌজার এসএ ১৬৬, বিএস ২৬৭ ও ২৬৮ দাগে আমাদের ১৮.১৮ শতাংশ বসত বাড়ি ছিল। এরমধ্যে বিএস জরিপের সময় উক্ত ভূমির কিছু অংশ আমাদের নামে জরিপ হয়। বাকী ভূমি পাশের বাড়ির বিল্লাল ও তাজুল ইসলামের নামে রেকর্ড হয়। আর কিছু অংশ খ তফসিলের ১/১ খতিয়ানে লিপিবদ্ধ হয়। বিএস রেকর্ড হওয়ার কারণে বিল্লাল ও তাজুল ইসলাম আমাদের বাড়ি ভূমি জবর দখল করে রেখেছে। আমাদের মালিকীয় ভূমি ছাড়ার জন্য বিল্লাল ও তাজুল ইসলামকে বলা হলেও তারা দখল ছাড়ছে না। বরং আমাদেরকে বিভিন্ন ভাবে হুমকি ধমকি দিয়ে যাচ্ছে। এতে আমরা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছি। এসব ভূমি জবর দখলের বিরুদ্ধে বিজ্ঞ আদালতে মামলা করেছি। মামলায় আমাদের পক্ষে রায় এসেছে। তারপরও তারা আদালতের রায় অমান্য করে আমাদের বাড়ি ভূমি দখল করে রেখেছে। আমাদের ভূমি উদ্ধারে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও স্থানীয় সংসদ সদস্য আইনমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করছি।
সংবাদ সম্মেলনে তিনি আরও বলেন, অবৈধ দখলদার গং আমাদের জায়গা না ছাড়লে আগামী ২০ থেকে ২২ নভেম্বর ৩ দিন মানববন্ধন কর্মসূচি পালন করব। তাতে দাবী আদায় না হলে ২৩ নভেম্বর সকালে আখাউড়া উপজেলা নির্বাহী অফিসারের কার্যালয়ের সামনে অনশন কর্মসূচি পালন করব। তাতেও দাবী আদায় না হলে পরবর্তীতে কঠোর কর্মসূচি দেওয়া হবে।
এ ব্যপারে জানতে চাইলে বিল্লাল মিয়া ও তাজুল ইসলাম বলেন, আমরা কারও সম্পত্তি দখল করিনি এবং কাউকে হুমকি ধমকিও দেইনি। আমাদের বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ সম্পুর্ন মিথ্যা, বানোয়াট ও উদ্দ্যেশ্য প্রনোদিত। আমরা এস,এ ক্ষতিয়ানের বৈধ মালিক হইতে খরিদসুত্রে মালিক থাকিয়া বাংলাদেশ সরকারের বি,এস জরিপে আমাদের নামে অন্তর্ভুক্ত হইয়াছে। সরকার আমাদের কাছ থেকে খাজনাও নিচ্ছে।   আমরা আমাদের ক্রয়কৃত ভূমিতে বহুকাল যাবৎ বসবাস করছি এবং ভোগদখলে আছি।  তাদের ভয়ে আমরা বাড়ি থেকে এখন বের হতে পারছি না। আমরা এখন গৃহবন্দী। প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করছি।
বাদল আহাম্মদ খান                                                                                      দেশেল কন্ঠ ২৪.কম

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর
২০২০© এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ*
সহযোগিতায় রায়তা-হোস্ট ডিজাইন : SmartiTHost
desharkontho-lite