শনিবার, ১৬ জানুয়ারী ২০২১, ১২:৩৯ পূর্বাহ্ন

আবারো ঢাকের শব্দে ও উলু ধ্বনীতে উজ্জীবিত আখাউড়ার ধর্মনগর ঐতিহাসিক কালী মন্দির

প্রতিবেদকের নাম :
  • আপডেটের সময় : রবিবার, ২৭ সেপ্টেম্বর, ২০২০
  • ৭৪ সময় দর্শন

ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা প্রতিনিধিঃ

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার আখাউড়া উপজেলার মনিয়ন্দ ইউনিয়নের ধর্মনগর কালীবাড়ীর ঐতিহাসিক কালী মন্দিরটি আবারো উজ্জীবিত হল ঢাকের শব্দে ও উলু ধ্বনীতে। এলাকায় স্থানীয়ভাবে সনাতন ধর্মের অনুসারী কমে যাওয়ায়, মন্দিরটির ঐতিহ্য দিন দিন হারাতে বসেছে। প্রায় দুইশত বছরের ঐতিহ্যবাহী এই মন্দিরটি এলাকার সনাতন ধর্মের লোকেরা ধর্মীয় উপাসনার জন্য সেই সময় কষ্টিপাথরের মুর্তিসহ মন্দিরটি তৈরী করে ছিল বলে খবর পাওয়া যায়। আবারো মন্দিরের সকল কার্যক্রম চালু করার লক্ষ নিয়ে কর্মমঠ উচ্চ বিদ্যালয়ের সাবেক শিক্ষক বাবু সুসেন চন্দ্র সরকারের সভাপতিত্বে শনিবার দিনব্যাপী এক উৎসবের আয়োজন করে আখাউড়া উপজেলার মনিয়ন্দ ও কসবা উপজেলার গোপীনাথপুর ইউনিয়নের সনাতন ধর্মের অনুসারীরা। এসময় ভক্তরা কীত্তন ও বিভিন্ন ভক্তিগীতি পরিবেশন করেন। পরে উপস্থিত সকলের মাঝে প্রসাদ বিতরণ করা হয়। অনুষ্ঠানে বিভিন্ন স্থান থেকে আগত ভক্তরা সাংবাদিকদের জানান, ঐতিহাসিক এই মন্দিরের জরাজীর্ন অবস্থা থেকে এটাকে সংস্কার করে আধুনিকায়ন করা দরকার, এবং এখানে একটি স্থায়ী শৌচাগার ও নলকুপ বসানোর দাবি জানান তারা

এসময় অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, গোসাইস্থল আশ্রমের সহ-সভাপতি শ্রী গৌতম কুমার বনিক, রামপুর উচ্চ বিদ্যালয়ের সহকারী শিক্ষক শ্রী উত্তম কুমার শিব, চন্ডিদ্বার বাজারের ব্যাবসায়ী শ্রী মধু বনিক ও এলাকার গন্যমান্য ব্যাক্তি বর্গসহ আরো অনেকে। অনুষ্ঠানে এলাকার বিভিন্ন মন্দিরের পুরোহিতসহ প্রায় কয়েকশত ভক্ত উপস্থিত ছিলেন। মন্দিরটি সংস্কারকরে এবং সনাতন ধর্মের সকল আনুষ্ঠিানিকতা চালুকরে এর হারানো ঐতিহ্য ফিরে পাক ও ভক্তদের পদচারনায় মূখরিত হবে পুরো এলাকা এমনটাই প্রত্যাশা সকলের।

বাদল আহাম্মদ খান                                                                                       দেশের কন্ঠ ২৪.কম

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এই বিভাগের আরও খবর
২০২০© এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ*
সহযোগিতায় রায়তা-হোস্ট ডিজাইন : SmartiTHost
desharkontho-lite